উইন্ডোজ ভিসতার খোঁজ খবর

সব জল্পনা-কল্পনা শেষে নতুন বছরে মাইক্রোসফট উইন্ডোজ ভিসতা বাজারে ছাড়বে। বিশ্বব্যাপী মাইক্রোসফটের একচেটিয়া ব্যবসা থাকার পরও উইন্ডোজ এক্সপি অনেক বছর পর ভিসতা বাজারে আসছে। প্রযুক্তিপ্রেমীরা সেদিকেই তাকিয়ে আছে। এই উইন্ডোজ ভিসতায় রয়েছে কয়েকশ লুকানো চমক। যা ব্যবহারকারীরা ভিসতা ব্যবহার করে ধীরে ধীরে জানতে পারবে। তবে সবার মতো মাইক্রোসফট ভিসতার বাজার নিয়ে মাথাব্যথা নেই বললেই চলে, যদিও মাইক্রোসফট মনে করে উইন্ডোজের প্রতিদ্বন্দ্বী উইন্ডোজেরই পূর্বের ভার্সন। এখন দেখার বিষয় কী থাকছে ভিসতায়।মিডিয়া প্লেয়ার ১১: ভিসতার সঙ্গে থাকা মিডিয়া প্লেয়ার ১১তে অনলাইন ও অফলাইন মিউজিক লাইব্রেরি, মিউজিক ডাউনলোডের ব্যবস্থা, সিডি বার্নিং, ওয়ার্ড হুইলিং সার্চিং সিস্টেম, ফটো ডিসপ্লে, এক্স বক্স ৩৬০।

কন্ট্রোল প্যানেল: ভিসতার কন্ট্রোল প্যানেলে নতুন নতুন ফিচার যুক্ত হচ্ছে। ভাবে আসছে নেটওয়ার্ক সেন্টার, প্যারেন্টার কন্ট্রোল, পেন এন্ড ইনপুট ডিভাইস, সাইটবার প্রোপার্টিস, সাইনক সেন্টার, টেক্সট টু স্পেস, উইন্ডোজ ডিফেন্টার ও উইন্ডোজ সাইটশো।এক্সপ্লোরার ৭: ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার ৭ ভিসতার অন্যতম আকর্ষণ। এক্সপ্লোরার ৭-এ থাকছে নতুন ইন্টারফেস, ব্রাউজিং ট্যাব, কুইক ট্যাব, আরএসএস পেজ জুম ও উন্নত সিকিউরিটি।

উইন্ডোজ মিডিয়া সেন্টার: স্টার্ট মেনুতে থাকছে উইন্ডোজ মিডিয়া সেন্টার যাতে আছে পিকচার+ভিডিও, টিভি, মিউজিক, স্পটলাইট, টুলস ও টাস্ক। এছাড়াও হোম থিয়েটার সিস্টেম, ডিভিডি প্লেয়ার ও রেকর্ডার, মুভি থিয়েটার, মুভি ষ্টুডিও, টেলিভিশন, পার্সোনাল ভিডিও রেকর্ডার, জুকবক্স, মিউজিক সার্ভার ও ফটো লাইব্রেরি।এছাড়াও অতিরিক্ত প্রোগ্রামে থাকছে অনলাইন স্পটলাইট। এই অনলাইন স্পটলাইটে থাকছে ফ্রি টেলিভিশন শো, ইন্টারনেট রেডিও, নিউজ, মুভি টেইলর, প্রোডকাষ্ট, এএলও ভিডিও, ইয়াহু, রাইটারস, এমএসএন টিভি টুডে এবং এবিসি।

এরো {AARO}(অথেনটিক, এনার্জেটিক, রিফ্লেক্টিভ এবং ওপেন): ভিসতায় সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে নিরাপত্তার উপরে। এই এরোতে রয়েছে উন্নত নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ফাইল শেয়ারিং, এনক্রিপশন, সর্বত্র ট্রান্সপারেন্সির ব্যবহার, উন্নত গ্রাফিক্যাল ইন্টারফেস ইত্যাদি। সব মিলিয়ে এরো ছাড়া উইন্ডোজ ভিসতার মাহাত্ম্যই বোঝা যাবে না। আর এই এরোর জন্য চাই উন্নত গ্রাফিক্স কার্ড ওর্ যাম।

ভিসতার জন্য প্রয়োজনীয় হার্ডওয়্যার: ভিসতা এরোর ফিচারসহ প্রিমিয়াম চালাতে হলে ১ গিগাহার্টজ প্রোসেসর, ১ গিগাবাইটর্ যাম, ডিরেক্ট এক্স ৯ সমর্থিত ১২৮ মেগাবাইট গ্রাফিক্স কার্ড, ১৫ গিগাবাইট ফ্রি জায়গা, ডিভিডি রম তো লাইবেই। তবে এরোর ফিচার ছাড়া চালাতে হলে ১২৮ মেগাবাইট গ্রাফিক্স কার্ড ও এক্সপি রিকয়ারমেন্ট লাগবে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s

%d bloggers like this: