সয়ংক্রিয়ভাবে অনলাইনে ফাইল রাখা

ফাইলের নিরাপত্তার জন্য আমরা অনলাইনে তা আপলোড করে রাখি। এর সুবিধা হচ্ছে অন্য কম্পিউটারে থেকেও আপলোড করা ফাইল যাতে দেখা বা ব্যবহার করা যায়। আর শেয়ার করার সুবিধা থাকলেতো কথায় নেই। অনলাইনে বিভিন্ন যেসকল ফ্রি আপলোডিং সাইট আছে তার মধ্যে ড্রপবক্স অন্যতম। Read the rest of this entry »

Advertisements

ফ্যাট৩২ ফাইল সিস্টেমের সীমাবদ্ধতা

FAT বা FAT32 সম্পর্কে আমরা কম বেশী জানি। ফাইল এ্যালোকেশন টেবিল বা ফ্যাট (FAT) এর কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। ফ্যাট৩২ এর কিছু সীমাবদ্ধতা হচ্ছে ৩২ গিগাবাইটের বেশী পার্টিশন তৈরী করা যাবে না, ৪ গিগাবাইটের বড় ফাইল রাখতে পারবেন না। Read the rest of this entry »

ফাইল/ফোল্ডারের তালিকা তৈরী করা

অনেক সময় নির্দিষ্ট ফোল্ডারের বা ড্রাইভের অধিনে থাকা একাধিক ফাইল বা সাবফোল্ডারে তালিকা তৈরী করার প্রয়োজন হতে পারে। এগুলো যদি লিখে করতে হয় তাহলে বেশ সময় সাপেক্ষ ব্যাপার হয়ে দাড়ায়। কিন্তু যে ডাইরেক্টরি প্রিন্টার এর সাহায্যে সহজেই যেকোন ফোল্ডারের বা ড্রাইভের অধিনে থাকা ফাইলগুলোর (সাব ফোল্ডারের) তালিকা তৈরী করতে পারেন। Read the rest of this entry »

দেখে নিন ফাইলের ঠিকানা

আমরা যখন ওয়ার্ড, এক্সেল বা পাওয়ার পয়েন্ট নিয়ে কাজ করি তখন টাইটেলবারে উক্ত ফাইলের ঠিকানা দেখা যায় না যা যেমনটি দেখা যায় কোন ফোল্ডার বা ড্রাইভে। তবে আপনি চলন্ত ফাইলের ঠিকানা মেনুবারে (অন্য যেকোন বাবে) দেখতে পারেন। এজন্য টুলস মেনু থেকে Customize এ ক্লিক করুন। এবার Commands ট্যাব থেকে Categories list এর Web নির্বাচন করুন। Read the rest of this entry »

এক শর্টাকটে একাধিক ফাইল খোলা

শর্টাকাটের সবচেয়ে বেশী ব্যবহার হয় ডেক্সটপে। আর একটি শর্টকাটের সাহায্যে শুধমাত্র একটি মাত্র ফাইল/প্রোগ্রাম/ফোল্ডার খোলা যায়। কিন্তু একটু চালাকি করলে একটি মাত্র শর্টকাটের সাহায্যে একাধিক ফাইল/প্রোগ্রাম/ফোল্ডার খুলতে পারবেন। এজন্য প্রথমে (Start Menu -> Accessories -> Notepad) নোটপ্যাড খুলুন। এবার যে যে প্রোগ্রামের বা ফাইলের শর্টকাট করতে চান সেগুলোর লোকেশন নিচের মত করে লিখুন। Read the rest of this entry »

ছবির ভিতরে ফাইল লুকিয়ে রাখা

আপনি চাইলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ ফাইল জিপ করে একটি ছবির (ইমেজ) মধ্যে লুকিয়ে রাখতে পারেন। এজন্য আপনাকে যেকোন আর্কাইভ সফটওয়্যার (উইনজিপ, উইনরার, সেভেনজিপ ইত্যাদি) ব্যবহার করে গুরুত্বপূর্ণ ফাইলগুলোকে জিপ (zip, rar, 7-zip যেকোন ফরম্যাটে) করুন। Read the rest of this entry »

বাংলাতে ফাইল ও ফোল্ডারের নাম লেখা

কম্পিউটারের হার্ডডিক্স ড্রাইভের, ফাইল বা ফোল্ডারের নাম বাংলাতে লেখা যাবে। তবে এজন্য উইন্ডোজ ২০০০ বা এর পরের ভার্সন প্রয়োজন হবে কারণ উইন্ডোজ ২০০০ এবং এর পরবর্তী সংস্করনের উইন্ডোজ ইউনিকোডের উম্মুক্ত ফন্ট সমর্থন করে। তবে বাংলা লেখার জন্য অভ্র (ইউনিকোড কমপ্লান্ট বাংলা ইনপুট সফটওয়্যার) কীবোর্ডের প্রয়োজন। Read the rest of this entry »